একটি ওয়েবসাইট হতে পারে আপনার সারাজীবনের উপার্জনের মাধ্যম

No Comments

##ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন

আপনি জানেন কী, একটি ওয়েবসাইট আপনার সারাজীবনের উপার্জনের মাধ্যম হতে পারে। ডিজিটাল এই যুগে আপনার প্রতিষ্ঠানটি যেন মানুষ খুব সহজেই ইন্টারনেটে খুঁজে পায়, তারই মাধ্যম হচ্ছে ওয়েবসাইট। আপনার প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন সেবা সম্পর্কে যেন মানুষকে খুব সহজেই জানাতে পারেন, ওয়েবসাইট তারই মাধ্যম। একটু মাথা খাটিয়ে একবার ইনভেস্ট করলে আপনি সারাজীবন বসে খেতে পারবেন। এর জন্য যেটা দরকার,তা হল একটি লাভজনক ওয়েবসাইট কীভাবে বানাতে হয় এবং কীভাবে আপনি আপনার প্রতিষ্ঠানকে মানুষের কাছে জনপ্রিয় করে তুলবেন সে সম্পর্কে ভাল ধারণা থাকা। আসুন জেনে নেই, আপনার ওয়েবসাইট কীভাবে আপনার সারাজীবনের উপার্জনের মাধ্যম হতে পারেঃ 

ব্র্যান্ডিংঃ 

মানুষ সবসময়ই ব্রান্ডের জিনিসের কদর করে বেশী ,পছন্দের তালিকায় শীর্ষে রাখে । যদি আপনি নিজেকে,নিজের পছন্দের ভিত্তিতে ও ভিন্নধর্মী একটি ব্রান্ড রচনা করতে পারেন তবে যে কেউ সেই ব্রান্ডের প্রতি স্বভাবসুলভ ভাবেই আগ্রহি হবে। আপনি নিজেকে আলাদা একটি ব্রান্ডের মতই উপস্থাপন করার মাধ্যমে এবং আপনার পণ্য / কার্যাদি দিয়ে মানুষকে আকর্ষিত করতে এবং অন্য উচ্চতায় আপনার করা এই ব্র্যান্ড কে পৌঁছে দিতে সবচেয়ে কার্যকর ভুমিকা রাখে একটি ওয়েবসাইট । 

ওয়ার্ড ওয়াইড ব্র্যান্ডিংঃ 

কেমন হয় মাত্র একটি প্লাটফরমের মাধ্যমে নিজের এই ব্র্যান্ডটিকে যদি কেবল মাত্র আপনার নিজের দেশের মধ্যেই নয় পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তে পৌঁছে দিতে পারেন এবং আপনার প্রতিষ্ঠান বা আপনার পণ্য কে সবার দোরগোড়ায় পরিচয় করিয়ে দিতে পারেন ? এভাবে বরং দেশের অভ্যন্তরেই নয় বরং পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তেই খুব দ্রুতই এর অনন্যতা জানান দিতে পারবেন । কারন পশ্চিমা দেশগুলোয় এমনকি আমাদের দেশেও অন্য যেকোনো মাধ্যমের চেয়ে ওয়েবসাইট এর উপরে বিশেষ পেশাদারিত্ব ও বিশ্বাসযোগ্যতার ব্যাপারে গুরুত্ব দেয় বহুলপ্রচলিত ফেসবুক বা ইউটিউব সহ অন্যান্য যোগাযোগ মাধ্যম গুলোর চেয়ে ।

ওয়েবসাইটকেই কেনো বেছে নিবেনঃ ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন 


ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই কেন করবেন ! ওয়েবসাইট এর মাধ্যম ছাড়া আরও অন্যান্য যেসমস্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম রয়েছে কিন্তু তার সত্ত্বেও ওয়েবসাইট ; এর কারন হল পেশাদারিত্ব । পেশাদারি না হলে আপনিও কখনোই সেই প্রতিষ্ঠান বা এর কর্মী মুখী হতে চাইবেন না। এমন কি এরিয়েও চলবেন । যা একটি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বিশাল হুমকি স্বরুপ। আর, পুরো পৃথিবীর যদি ৩০-৪০ % মানুষই ওয়েবসাইট নির্ভর কেনাকাটা , নিশ্চিতকরণ, রেটিং যাচাইকরণ ও বিশ্বাসযোগ্যতা পরিমাপের মুল মাপকাঠি হিসাবে গ্রহন করে থাকেন ; তবে কেন নয় একটি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনার, আপনার প্রতিষ্ঠান ও পণ্যসমূহ সকলের কাছে আরও অধিক মূল্যবান হিসেবে জাহির করা ? তাই পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে আপনাকে উপযুক্ত রুপে মেলে ধরুন ও নিজের প্রতিষ্ঠানের এবং পণ্যের বিস্তার ঘটান । 

ওয়েবসাইট তৈরিতে কেমন সময় প্রয়োজনঃ 

আপনি ভেবে থাকেন যদি ওয়েবসাইট তৈরি হয়তোবা অনেক পরিশ্রম,সময় এবং বিশেষত খরচ সাপেক্ষ ব্যাপার তবে যার কোনটাই নয়। একদম স্বল্প খরচে,অল্প শ্রমে ও অল্প সময়ে একটা প্রাথমিক পর্যায়ের ওয়েবসাইট দ্রুতই খোলা যায়। যা আপনার অগ্রসরের পাথেয় হবে। কারন যার শুরু নেই তার কোন অগ্রগতিও হবে না । পরবর্তীতে ওয়েবসাইটটি আরও আপডেট ও ডিজাইন করে সাজাতে পারবেন।

 

ক্লাস্টোমার সাথে সহজ যোগাযোগ মাধ্যমঃ 

একটি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপনার নিজের বিস্তারিত এবং আপনার প্রোডাক্ট বা প্রতিষ্ঠানের বিস্তারিত সব ধরনের তথ্যাদি দেয়া থাকবে। যা আপডেট যদি পরবর্তীতে আপডেট করেন, এক্ষেত্রে যে কারোর বিশ্বাস অর্জন করা, আপনার নিজের বিস্তারিত তথ্য ,পণ্যের যাবতীয় তথ্য, ব্যাবহার, যেকোনো প্রশ্ন ও তার উত্তর এর নিরধারিত অংশ, সময় সম্পর্কিত তথ্য, দাম, সুন্দর ছবি ও পণ্যের ব্যাপারে বিশ্বাসযোগ্যতা এবং প্রাপ্যতা ইত্যাদি যাবতীয় বিষয় নিয়ে সন্দেহের অবকাশ থাকবে না । 

সফলতার মাধ্যমঃ ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন

ওয়েবসাইট আজ থেকে নয় বরং আরও অনেক আগে থেকেই ছিল একটি প্লাটফর্ম এবং বেশ ট্রেনডি একটি ব্যাপার হিসেবে, যা এখনও পর্যন্ত এটি ব্যবসায় একটি ট্রেনড হিসেবে চলছে। যেকোনো বড় ছোট মাঝারি রকমের প্রতিষ্ঠানেরই আবশ্যিক একটি দিক আপনি লক্ষ্য করলেই দেখতে পাবেন। আজকাল মানুষ আত্মনির্ভরশীল হয়ে উঠছে নিজস্ব ব্যবসাস্যাইক ধারায়। তাই আপনিও আপনার আত্বসম্প্রসারনের জন্যে এবং খুব দ্রুত পূর্ণতা অর্জনের মাধ্যমে সফলতা অর্জনের জন্যে ওয়েবসাইট এর উপরে গুরুত্তারোপ করুন 

বর্তমান ট্রেন্ডের সাথে নিজেকে মেলে ধরাঃ ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন

এক সময় ক্রেতা প্রয়োজনীয় পণ্যের বিক্রেতাকে খুঁজতো কিন্তু এখনের পলিসি মতে বিক্রেতাই ক্রেতার দোড়ে পৌঁছে যায়।এর মাধ্যমে আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের তথ্য খুব সহজে সবাইকে জানাতে পারেন।আপনার উপার্জনের সক্ষমতা বাড়াতে পারেন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে উল্লেখযোগ্য শতাংশ পণ্যই বিক্রি সাধন হয়ে থাকে। অল্প সময়ে ও খরচে লক্ষ লক্ষ মানুষকে জানিয়ে দিন যে আপনার প্রতিষ্ঠানের নাম বা পন্যের বিবরন ও দাম। এভাবেই ক্রেতাদেরকে কোন পণ্য বা সেবা সম্পর্কে ধারণা প্রদান করা খুবী কার্যকরী একটি মাধ্যম এটি । 

বিশ্বাসযোগ্যতা ও পেশাদারিত্তের পরিচয়ঃওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন


ক্রেতাদের বাড়তি খরচ বাঁচানোর জন্যে এটি হতে পারে খুব এ উপজুক্ত একটি উপায়। এর কারন হল ছোট বড় প্রায় সকলেই ওয়েবসাইট এর ব্যাপারে ধারনা রাখে যা হয়তো কিছু আগের জেনারেশন এর বা আজকের দিনের একজন বয়োজ্যেষ্ঠ মানুষ ও নুন্নতম ধারনা রাখে ও ফেসবুক সহ আধুনিক অন্যান্য মাধ্যমের চেয়ে অনেক বেশী বিশ্বাসযোগ্যতা ও পেশাদারিত্তের পরিচয় দেয়, তাই অনেকেই যারা সময় বা শারিরিক দুর্বলতার বা অন্য কোন কারনে বাইরে যেতে বা ঘুরতে পারবেন না তারা একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই ভিন্ন মানুষের মতামত ও রেটিং দেখে এবং পণ্যের বিস্তারিত যাচাই বাছাই করে ঘরে বসেই অর্ডার করে ফেলতে পারেন। 

তবে আর দেরি না করে করে ফেলুন নিজের এমন একটি ওয়েবসাইট যা আপনাকে ও আপনার প্রতিষ্ঠানকে 
এগিয়ে নিয়ে যাবে অনেকদূর । 

পরবর্তি ব্লগঃ জীবন বদলে দেয়া ১০টি স্বল্প পুঁজির ব্যবসার আইডিয়া

#ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন

#ওয়েবসাইট দিয়ে টাকা আয় করুন

About us and this blog

We are a digital marketing company with a focus on helping our customers achieve great results across several key areas.ABS

Request a free quote

We offer professional SEO services that help websites increase their organic search score drastically in order to compete for the highest rankings even when it comes to highly competitive keywords.

Subscribe to our newsletter!

There is no form with title: "SEOWP: MailChimp Subscribe Form – Vertical". Select a new form title if you rename it.

More from our blog

See all posts

Leave a Comment

four × 3 =