IT Blog

ফেসবুক পেজে coupon ব্যবহার কতটা নিরাপদ!
Facebook Corporate Business

ফেসবুক পেজে coupon ব্যবহার কতটা নিরাপদ!

ফেসবুক Coupon কি ?
ফেসবুক কুপন বা ফেসবুক এড কুপন যেটাই বলেন এটা এমন একটি জিনিস যেটা দ্বারা আপনি পেজে বিজ্ঞাপন করতে পারবেন একদম ফ্রিতে।

এবার প্রশ্ন হচ্ছে ফ্রিতে কেন ?
আপনি হয়তো সিম কম্পানি গুলোকে দেখেছেন যে, নতুন সিম কিনলে অথবা বন্ধ সিম চালু করলে তারা আপনাকে অনেক ধরনের অফার দিয়ে থাকে। যেমন- নতুন সিম বা বন্ধ সিম চালু করলেই আপনি 10GB এবং 300 মিনিট পাচ্ছেন একদম ফ্রিতে।
ঠিক তেমনই ফেসবুকের পক্ষ থেকে কুপন আপনার জন্য একটা উপহার। আপনি নতুন আইডি খুললে অথবা অনেক দিন পেজে বুস্ট না করালে ফেসবুক তখন আপনাকে কুপন উপহার দিয়ে থাকে অর্থাৎ আপনাকে প্রলোভন এর জন্য ফেসবুক আপনাকে ফ্রিতে কুপন দিয়ে থাকে।

 

কুপনের মেয়াদ কতদিন থাকে ? 
ফেসবুক যখন আপনাকে কুপন দিবে তার ৩০ দিন পর্যন্ত তার মেয়াদ থাকবে। এর ভিতর redeem  করালে আপনাকে আরো ৩০ দিন মেয়াদ দেয়া হবে কুপন ব্যবহার করার জন্য। এড একাউন্টের পেমেন্ট সিটিংস থেকে আপনি কুপন ব্যালেন্স এবং মেয়াদ দেখতে পারবেন।

 

কুপনে কি ভাল রিসপন্স আসে নাকি খারাপ?
অনেকে মনে করে কুপন ইউস করলে খারাপ রিসপন্স আসে। এটা আসলে ভুল ধারনা কুপন ইউস করলে আপনি খারাপ রেসপন্স পাবেন নাহ ভাল রেসপন্স পাবেন।   


এবার আসি অন্য প্রসংগে, আপনি কুপন তো ব্যবহার করছেন কিন্তু আপনি কি সেটা কিনে ব্যবহার করছেন ? 

ফেসবুক আমাদেরকে বৈধ ভাবে ফ্রি কুপন দিয়ে থাকে তার কিছু ব্যবহারকারী দের বিনামূল্যে পেজ প্রমশনের জন্য।
এই পুজি কে কাজে লাগিয়ে অনেকে নতুন নতুন আইডি বা প্রফাইল বানিয়ে কিছু ট্রিকস ব্যবহার করে কুপন বের করে। কিন্তু কিছু কিছু  অসত ব্যবসায়ী এই ফ্রি কুপনকে টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে। এখন বাটপারিটা কোথায় করে বা কিভাবে করে ?
ধরুন আপনি কারোর কাছ থেকে টাকার বিনিময়ে কুপনটি কিনলেন। এখানে যে আপনাকে কুপনটি বিক্রি করবে সে হবে কুপনটির মালিক। এবং তার কাছে সব চেয়ে বেশি পাওয়ার থাকবে। 

এখানে কুপনটি বিক্রি করার সময় সে আপনাকে এডমিন বানিয়ে দিবে এবং আপনার কাছ থেকে টাকাও নিবে। কিন্তু কথা হচ্ছে আপনি কুপনটির এডমিন হয়েও ঐ মুল এডমিনকে Remove করতে পারবেন নাহ।
এখানে হচ্ছে মেইন প্রবলেম, মূল এডমিন চাইলে যে কোনো সময় আপনাকে এডমিন থেকে রিমুভ করে দিতে পারে। আর এটা যদি সে করে তাহলে আপনার পুরো টাকা টাই অপব্যয়িত হবে বা নষ্ট হবে। 


এবার আসি পরের প্রবলেমে, চাইলে মূল মালিক ঐ একটা কুপনের অনেক জন কে এডমিন বানাতে পারবে।
অর্থাৎ চাইলে ঐ একটা কুপনই অনেকের কাছে বিক্রি করতে পারবে।
তাহলে এবার বলুনতো, এমনটা করলে আপনি কি বিপদের সম্মূক্ষিন হবেন ?
যদি ঐ একটা কুপনের মালিক অনেক জন হয় তাহলে, দেখা গেল আপনার এড চলা কালিন অবস্থায় আর একজন এডমিন এসে জোর পূর্বক তার পোস্টে বুস্ট করালো এতে করে কুপন থেকে ঐ এডের টাকা কাটা হবে এবং আপনি আবার ক্ষতির শিকার হবেন। 

৩য় প্রবলেম, হঠাৎ দেখলেন  একাউন্ট ফ্লাগ হয়ে গেছে। অথচ আপনি কিন্তু কোনো পলিসি ভায়োলেট করেননি।
তাহলে একাউন্ট কিভাবে ফ্লাগ হলো তাই তো ?
যদি কোনো এডমিন পলিসি ভায়োলেট করে এমন কিছু এড বুস্ট করে তাহলে ঐ একাউন্ট ফ্লাগ হয়ে যাবে।

 

৪র্থ প্রবলেম, ধরুন আপনি কোনো এজেন্সি দিয়ে বুস্ট করিয়েছেন এবং তারা কুপন দিয়ে বুস্ট করলো এই ক্ষেত্রে তারা যদি এডের বিল ভিউ রাখে, তাহলে আপনার পেজের ক্ষতি হতে পারে।  

৫ম প্রবলেম, অনেকে আছে কারোর কাছ থেকে কুপন কিনে অন্যদের কম টাকাতে বুস্টের জন্য অফার করে থাকে। কিন্তু তাদের বুস্ট করার কোন অভিজ্ঞতা নেই। এই কম টাকার বুস্টের ফাদে পরে অনেকেই আছে তার পোস্টের জন্য তার কাছ থেকে বুস্ট করে থাকে । এই ফাদে পা দিয়ে দিয়ে অনেকেই ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে এবং আপনিও হতে পারেন তাই সাবধান।

 

প্রত্যকটি জিনিসের সুবিধা যেমন থাকে ঠিক তেমনি অসুবিধাও কিন্তু থাকে। ধরলাম আপনি ঠিক পদ্ধতিতেই কুপন ব্যবহার করছেন এবং ভাল রিচও পাচ্ছেন। কিন্তু এটা কি পেজর জন্য ভাল ?

এটা আসলে কোটি টাকার প্রশ্ন। অনেকের মধ্যেই এই সম্পর্কে ভাল ধারনা নেই।
তাহলে আসুন জানি যে, কুপন ব্যবহার করলে আপনার পেজের হ্যম্পার অথবা প্রবলেম হয় কি নাহঃ


আপনার কি মনে হয় ফেসবুক কি আপনাকে এমনি এমনি ফ্রি কুপন দিচ্ছে ?

তার জন্য একটা কারন আছে। এটা একটা বিজনেস পলিসি। আপনি যেন বুঝতে পারেন যে, বুস্ট করালে আপনার পোস্ট রিচ হচ্ছে। ফেসবুক আপনাকে ফ্রি বুস্ট এক্সপ্রিয়েন্সের জন্য এই কুপন গিফট করছে।
এখানে একটা কিন্তু আছে, আপনি কি তাই বলে বার বার নতুন আইডি খুলে বুস্টের জন্য কুপন ব্যবহার করবেন ?

অবশ্যই নাহ, এতে আপনার পেজের হ্যাম্পার হতে পারে। কারন আপনার পেজে বার বার কুপন ব্যবহার করা হলে ফেসবুক আপনার পেজকে তখন আন ইউজুয়াল এক্টিভিটির উপর ধরে। যার ফলে ফেসবুক আপনার পেজের রিসপন্স কমিয়ে দিতে পারে এবং একটা সময়ে এসে আপনার পেজ নষ্ট ও হয়ে যেতে পারে। 

বিভিন্ন মানুষের কাছে থেকে এসে এই কুপন গুলো বাজার যাত হয় , যার কারনে এখানে অনেক এডমিন এড থাকতে পারে। এই ক্ষেত্রেও ফেসবুক আপনার পেজকে আন ইউজুয়াল এক্টিভিটির ভিতর ধরে পেজকে অকার্যকর করে দিতে পারে। 

ফেইক আইডি ব্যবহার করে এই কুপন গুলো ব্যবহার করা হয় এই ক্ষেত্রে ঐ আইডি নষ্ট হওয়ার চান্স বেশি থাকে। সেই ক্ষেত্রে এই কুপনও অকার্যকর হয়ে যাবে। 


এবার আসি তাহলে আপনি কি পদ্ধতিতে বুস্ট করবেন ?

আপনি তো অবশ্যই যেনে থাকবেন যে, এক ডলার বাংলাদেশে ৮৬ টাকা। আপনি যখন ব্যাংক থেকে টাকা উঠাবেন তখন আপনাকে ১৫% ভ্যাট দিতে হবে। এই ৮৬ টাকা + ১৫% ভ্যাট মিলে আপনার প্রায় ১০০ টাকার মতো পরবে। 

তাহলে বুঝতে পারছে এই সমপরিমান টাকার কমে যদি কেউ বুস্ট করে দিতে চায় তখন আপনি বুঝে নিবেন যে, সে আপনাকে ঠকাচ্ছে অর্থাৎ  সে কুপন ব্যবহার করবে।
আর আপনি তো এই ব্লগটি পরে এখন বুঝেই গেছেন যে, কুপন পুরোপুরি ফ্রি।

তাই এরকম অসত ব্যবসায়ীর কাছ থেকে দুরে থাকবেন। এর চেয়ে বরং আপনি নিজে মাস্টার কার্ড ব্যবহার করে নিজের বুস্ট নিজে করে নিবেন ।

সব চেয়ে বেস্ট রেজাল্ট পেতে আপনি এমন  কোন ডিজিটাল মার্কেটিং কম্পানির সরনাপন্য হতে পারেন যারা “এড ম্যানেজার” ব্যবহার করে লিগাল ওয়েতে বুস্ট করিয়ে থাকে। এই ক্ষেত্রে আপনিই লাভবান হবেন, কারন  তারা সঠিক পদ্ধতি তে এক বুস্ট করে দিচ্ছে। অন্যদিকে আপনাকে আলাদা করে কোনো কষ্ট করতে হচ্ছে নাহ এবং আপনার পেজ হেম্পার হওয়ার ও কোনো ভয় নেই। 

এই ক্ষেত্রে আপনি Shopno career IT  এর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।
বাংলাদেশের ডিজিটাল মার্কেটিং কম্পানির ভিতর তারা অন্যতম। 

                   

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *