IT Blog

Rule of Third
Photography

ছবি তোলার ক্ষেত্রে Rule of third এর প্রয়োজনীয়তে কেনো ?

Rule of third কি ?

 

সাধারনত যখন আমরা প্রথম প্রথম ছবি তুলে থাকি সেটা মোবাইল হোক বা ক্যামেরা, আমরা আমাদের সাব্জেক্টকে ফ্রেমের মাঝখানে রেখে থাকি। 

 

সেটা বুঝে হোক আর না বুঝে হোক, যে কেউ যখন কোনো কিছুর ছবি তুলতে যাই তখন আমরা সেটাকে মাঝখানেই রাখার চেষ্টা করি। না হলে আমাদের কাছে তখন মনে হয় ছবিটা হয়তো ঠিক হয় নি।
আসলেই কি তাই ! 

আপনারা যারা যারা এতোদিন এভাবে ছবি তুলে এসেছেন, তারা ঠিক ভুল কাজটা করে আসতেছেন। ফটোগ্রাফির ভাষায় এই টাইপের ছবিকে বোরিং ছবি বলা হয়ে থাকে। 

 

উদাহরন সরুপ আপনি নিচে দুইটি ছবিটি দেখতে পারেন-
ছবি তোলার ক্ষেত্রে Rule of third এর প্রয়োজনীয়তে কেনো ?
Missing Rule of Third Rules

Rule of Third

 

এখানে প্রথম ছবিটি ভাল লাগতেও পার কারন একটা নৌকা দেখছে যাত্রি নিয়ে নদি পার হচ্ছে। কিন্তু আপনি যদি ভালভাবে দেখে থাকেন তাহলে বুঝতে পারবেন ছবিটির ভিতর কিছু একটা মিসিং রয়েছে। 

পরের ছবিটিতে নদী দিয়ে একটা নৌকা যাচ্ছে এক মাঝি নৌকা বাইছে আরেক মাঝি কি যেন ছবি তুলছে অথবা মোবাইলে কিছু দেখছে।

এই দুইটা ছবিতে আপনি কি কোনো ভুল খুজে পেয়েছেন ? নাকি এখনো বুঝতে পারতেছেন নাহ কি বলবেন !

Product Photography কি ?

আচ্ছা আর চিন্তা করতে হবে নাহ এবার এবার পরের দুইটি ছবি দেখুন তো -
Rule of third
Rule of third
Rule of Third
Rule of Third

কি কিছু পার্থক্য পেলেন ! পার্থক্যটা হচ্ছে ফ্রেমে, এটাকে বলা হয়ে থাকে “Rule of Third”। এটি একটি গাইড লাইন যা আপনাকে সাহায্য করবে আপনার সাবজেক্টকে কেন্দ্রে এনে আপনার চোখে ডায়নামিক ও আকর্ষনীয় করে তোলা। 

 

আচ্ছা, আপনি হয়তো এখনো পুরো ব্যপারটা ক্লিয়ার নাহ, আমি তাহলে একটু ডিটেইলসেই বলি-  

 

আমরা যখন মোবাইলে বা ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলে থাকি, প্রথমে আমরা একটা সাইজ সিলেক্ট করে থাকি, যেমন- 1:1, 3:4, 9:16

সাইজ তো একটা সিলেক্ট করলাম, কিন্তু আমাদের ক্যামেরায় একটা Grid অপশন থাকে এটা কি আপনি খেয়াল করেছেন ?

 

খেয়াল হয়তো ঠিকই করেছেন কিন্তু আপনার কাছে হয়তো এই Grid জিনিসটি ছবি তোলার ক্ষেত্রেই প্রবলেম হয়ে থাকে। যেমন অনেকেই বলে থাকে “ভাই এই মোবাইলের যে দাগ দাগ আসতেছে এটা কাটবো কিভাবে !!” 

ব্যপারটা আসলে হাস্যকর আপনাকে এই অপশনটা কেনো দেয়া হয়েছে কখনো ভেবে দেখেছেন !

হয়তো কখনো ভাবার চিন্তাই করেন নি, তাহলে আজ আপনাদের পুরো ব্যপারটা পরিষ্কার করে দিচ্ছি। 

নিচের ছবিটি খেয়াল করুন- 

 

Rule of third
Rule of third

এখানে আপনি দেখতে পাচ্ছেন একটি ফ্রেমে Vertical এবং Horizontal ভাবে দুইটা দাগ দেয়া রয়েছে। 

এখানে যে চারটি পয়েন্ট রয়েছে, এই চারটা পয়েন্টই হলো ফোকাস পয়েন্ট। 

প্রথম  ছবি দুইটি দেখুন- 

Rule of third
Rule of third
Rule of Third
Rule of Third

“Rule of Third” অনুযায়ী  ছবি দুইটি মিলালে  বুঝতে পারবেন যে, ছবি দুইটি কেন্দ্রে নেই, অর্থাৎ ফোকাস পয়েন্টে নেই।

 

 এবার পরের ছবি দুইটি দেখুন-

Rule of third
Rule of third
Rule of Third
Rule of Third

প্রথম ছবিটি ভাল করে খেয়াল করলে দেখতে পাবেন এখানে সাবজেক্ট কেন্দ্রে আছে, তার মানে এখানে সাবজেক্ট দুইটি, একটি নৌকা এবং আন্যটি চাদ । 

এবং দ্বিতীয় ছবিটি খেয়াল করলে দেখতে পারবেন এখানে সাবজেক্ট হচ্ছে ঐ লোকটা যে হাতে মোবাইল নিয়ে দাড়িয়ে আছে। 

তার মানে হচ্ছে আপনি এই “Rule of third” ব্যবহার করে আপনি যে কোনো সাবজেক্টকে ফোকাসে আনতে পারবেন। এবং আপনার ভিউয়ারকে বুঝাতে পারবেন যে এটা আপনার ফ্রেমে সাবজেক্ট। 

শুধু সাবজেক্টই ফোকাসে আসবে নাহ আপনার ছবিও আকর্ষনীয়ও লাগবে।  

 

এখানে অনেকেই আছে ওয়েবসাইট বানাতে চাচ্ছেন, আপনি যদি Website বানাতে চান  তাহলে Foresight IT এর সাথে যোগাযোগ
করতে পারেন। এছাড়াও তারা Monthly PackageDigital marketing Services Provide করে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *